ঢাকা     ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ ||  ১৬ মাঘ ১৪২৯

Biz Tech 24 :: বিজ টেক ২৪

পুঁজিবাজারে আসছে বড় সুখবর

বিজটেক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৫:৩১, ১৯ জানুয়ারি ২০২৩

আপডেট: ১৫:৩৩, ১৯ জানুয়ারি ২০২৩

পুঁজিবাজারে আসছে বড় সুখবর

দীর্ঘ দিনের মন্দা কাটিয়ে পুঁজিবাজারে গতি ফেরাতে এবার বড় অঙ্কের বিনিয়োগে যাচ্ছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি)। আইসিবির ক্রয়ক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ডিপোজিটরি ফান্ডকে এক্সপোজার লিমিটের (বিনিয়োগ সীমা) বাইরে রাখার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে শেয়ারবাজারে প্রায় ছয় হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে পারবে আইসিবি। আইনটি দ্রুত পাস করানোর জন্য দিকনির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

পুঁজিবাজারের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের বৈঠক হয়। বৈঠকে এসব নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, একটি বোর্ড মিটিংয়ের মাধ্যমে প্রস্তাব তৈরি করে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে পাঠাবে আইসিবি। পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ ব্যাংক বিষয়টি যেন দ্রুত পাস করে, সে জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন।

পুঁজিবাজারের অগ্রযাত্রায় যেসব পলিসিলিগত পরিবর্তন ও পদক্ষেপ দরকার, তা দ্রুত বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে সহায়তা করারও দিকনির্দেশনা দেবেন বলে জানান সরকারপ্রধান। আর এসব বিষয় তিনি নিজে তত্ত্ব্বাবধান করবেন বলেও জানিয়েছেন। এ বৈঠকের প্রভাবে শেয়ারবাজারে লেনদেনে গতি ফিরেছে।

জানা গেছে, বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম পুঁজিবাজার পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন। এ সময় পুঁজিবাজারের উন্নয়নে গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরেন তিনি। দেশের অর্থনীতি যেভাবে বিকশিত হচ্ছে, একইভাবে পুঁজিবাজারকেও বিকশিত করতে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, পুঁজিবাজার নিয়ে আমাদের যে স্বপ্ন তা বাস্তবায়নে যেসব নীতি সহায়তা দরকার সেগুলো দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। বাজার আরো বড়, সময়োপযোগী ও আধুনিক করতে যেসব পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন, সেগুলো নিয়ে আলোচনা করেছি। প্রধানমন্ত্রী আমাকে সমাধান দিয়ে দিয়েছেন।

শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম আরো বলেন, পুঁজিবাজারে আকর্ষণীয় পণ্য চালু করা হবে। পুঁজিবাজার যাতে আরো সমৃদ্ধ হয়, আরো বড় হয়, লেনদেনের পরিমাণ যাতে আরো বাড়ে, সে জন্য অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাপোর্ট দিচ্ছি। পুঁজিবাজার যাতে দেশের অর্থনীতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারে সেটার জন্য আমরা সব পদক্ষেপ নিচ্ছি। লেনদেন আরো বাড়া উচিত।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, মার্কেট ডেরিভেটিভস অনেকগুলোই আসবে। এর মধ্যে কারেন্সি ডেরিভেটিভস একটি। মেয়েদের জন্য অরেঞ্জ বন্ড, নারী উদ্যোক্তাদের জন্য পিংক বন্ড এ বছর আনব আমরা।

জানা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের হস্তক্ষেপে বন্ডে বিনিয়োগকে পুঁজিবাজার এক্সপোজারের বাইরে রাখতে ব্যাংক কম্পানি আইন সংশোধন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মন্ত্রীসভার আগামী বৈঠকেই আইনটি পাস করা হবে বলে জানা গেছে।