Biz Tech 24 :: বিজ টেক ২৪

মোট অর্ডারের মাত্র ৩৩ শতাংশ ডেলিভারি দেয় ইভ্যালি

বিজটেক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২:৩৫, ৬ মে ২০২১

মোট অর্ডারের মাত্র ৩৩ শতাংশ ডেলিভারি দেয় ইভ্যালি

বিতর্কিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালিতে পণ্যের অর্ডার দিয়ে সময় মতো ডেলিভারি পেয়েছেন এমন ক্রেতা পাওয়া মুশকিল। সময় মতো ডেলিভারি দিতে না পারলেও নতুন নতুন অফার ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। এক বছরে ইভ্যালি তার মোট অর্ডারের মাত্র ৩২.৯৮ শতাংশ পণ্য ডেলিভারি দিয়েছি।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সম্প্রতি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত ইভ্যালির অর্ডার, ডেলিভারি, অর্ডার বাতিল ও রিফান্ডের তথ্য সংগ্রহ করেছে। ওই তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, গত জানুয়ারি পর্যন্ত এক বছরে ইভ্যালি মোট অর্ডার পেয়েছে ১.০৮৬ কোটি। বিপরীতে এই সময়ে ইভ্যালি পণ্য ডেলিভারি করেছে ৩৫ লাখ ৪৫ হাজার অর্ডারের। অর্থাৎ, মোট অর্ডারের ৩২.৯৮% পণ্য ডেলিভারি দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

গত জানুয়ারি পর্যন্ত এক বছরে ইভ্যালিতে অর্ডার দিয়ে ৬২ লাখ ৫৯ হাজার অর্ডার বাতিল করেছেন ক্রেতারা, যা এই সময়ে দেয়া মোট অর্ডারের ৫৭.৫৮ শতাংশ। এর মধ্যে রিফান্ড পেয়েছেন মাত্র ৫ লাখ ৫৯ হাজার গ্রাহক, যা মোট বাতিল করা অর্ডারের ৮.৯৩ শতাংশ।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত জানুয়ারি মাসে ইভ্যালি ২০ লাখ ৩ হাজারটি অর্ডার পেয়েছে, আর এই সময়ে বিতরণ করা হয়েছে মাত্র ২ লাখ ৬৫ হাজার অর্ডারের পণ্য। অর্থাৎ, ওই সময়ে মোট অর্ডারের ১৩ শতাংশ ডেলিভারি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। জানুয়ারিতে ১৩ লাখ ৬২ হাজার অর্ডার বাতিল হয়েছে, মোট রিফান্ড পেয়েছে ২১ হাজার ৮৪২টি, যা মোট বাতিল হওয়া অর্ডারের ১.৬০ শতাংশ।

রিফান্ড না পেয়ে ক্রেতারা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগ করছেন। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ইভ্যালির বিরুদ্ধে ২ হাজার ১৮০টি মামলা করেছেন ক্রেতারা। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুযায়ী উভয়পক্ষের শুনানী নিয়ে অধিদপ্তর ওই সময় পর্যন্ত ১ হাজার ৭৯৭টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করেছে বলে সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

ইভ্যালির বিরুদ্ধে অগ্রিম মূল্য নেয়ার পর সময়মত পণ্য ডেলিভারি না দেয়া ও আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ তদন্ত করছে বাংলাদেশ ব্যাংক ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এর আগে এক তদন্ত রিপোর্টে ইভ্যালির বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ও বাংলাদেশ দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারা লঙ্ঘনের প্রমাণ পায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ক্রেতাদের হয়রানি বন্ধে ইভ্যালিকে ক্যাশ অন ডেলিভারি পদ্ধতিতে ব্যবসা পরিচালনার নির্দেশ দিয়ে চিঠি দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

premierbankltd