Biz Tech 24 :: বিজ টেক ২৪

ফ্রিলান্সারদের চাহিদা পূরণে ওয়ালটনের নতুন ল্যাপটপ

বিজটেক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৪:৫৮, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

আপডেট: ১২:৫৩, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

ফ্রিলান্সারদের চাহিদা পূরণে ওয়ালটনের নতুন ল্যাপটপ

বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন একের পর এক ডিজিটাল ডিভাইস বাজারে এনে চমক দেখাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বাধুনিক ফিচারসমৃদ্ধ আকর্ষণীয় ডিজাইনের নতুন ল্যাপটপ বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। বিশ্বখ্যাত চিপসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টেলের দশম প্রজন্মের প্রসেসরযুক্ত কেরোন্ডা সিরিজের ল্যাপটপটি এরইমধ্যে প্রযুক্তিপ্রেমীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

ওয়ালটনের কম্পিউটার বিভাগসূত্রে জানা গেছে, ‘কেরোন্ডা জিএক্সফাইভটেনএইচ’ (Karonda GX510H) মডেলের ল্যাপটপটিতে রয়েছে ইন্টেলের কোর আই ফাইভ ১০৩০০এইচ সিরিজের প্রসেসর, ৩২০০ মেগাহার্জের ৮ গিগাবাইট ডিডিআর৪ র‌্যাম, এনভিডিয়া এমএক্স৩৫০ ২ গিগাবাইট গ্রাফিক্স কার্ড, ১৫.৬ ইঞ্চি আইপিএস ফুল এইচডি ডিসপ্লে, ৫১২ জিবি এমডটটু এসএসডিসহ অত্যাধুনিক সব ফিচার।

কেরোন্ডাজিএক্স সিরিজের দ্বিতীয় মডেল এটি। এর আগে জিএক্সসেভেনটেনজি প্রো মডেলের কোর আই সেভেন প্রসেসরের ল্যাপটপটি বাজারে ছেড়েছিল ওয়ালটন। নতুন ল্যাপটপটি সব ধরনের গ্র্যাফিক্যাল কাজসহ হালকা গেমিংয়ের উপযোগি। ল্যাপটপটি ফ্রিলান্সারদের বিভিন্ন ধরনের কাজের জন্য বেশ মানানসই। এছাড়া বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য ভিডিও মেকিংসহ নানা কাজে স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যবহার করা যাবে সাশ্রয়ী মূল্যের এই ল্যাপটপ।

ওয়ালটন কম্পিউটার প্রোডাক্টের ম্যানেজার প্রকৌশলী মির শাহ আরফিন জানান, বর্তমানে বাজারে কোর আই ফাইভ প্রসেসরের ল্যাপটপের তীব্র সংকট রয়েছে। আগের মডেলটিতে বাজরে ব্যাপক সাড়া পাওয়ায় ক্রেতা চাহিদা পূরণেই নতুন মডেলের ল্যাপটপটি বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। ইন্টেল প্রসেসরের সঙ্গে এই ল্যাপটপে আছে ইন্টেলের ডেডিকেটেড এইচএম৪৭০ এক্সপ্রেস চিপসেট। বিল্টইন ইন্টেল ইউএইচডি গ্রাফিক্স ৬৩০ এবং ২ গিগাবাইট এক্সটার্নাল গ্রাফিক্স কার্ডের সমন্বয়ে ডিভাইসটি ইউজারদের সবধরনের চাহিদা পূরণে সক্ষম। পাশাপাশি ল্যাপটপটিতে ফুল এইচডি রেজুলেশনের আইপিএস ডিসপ্লে প্যানেল এবং মাল্টিকালার ইলুমিনেটেড কিবোর্ড থাকায় ব্যবহাকারী অনন্য অভিজ্ঞতা পাবেন।

কালো রঙের ল্যাপটপটিতে ৩২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে। বিশেষ সাউন্ডের আবহ তৈরিতে আছে হাই ডেফিনেশন অডিও। কন্টেন্ট বানানোর সুবিধার্থে আছে বিল্ট ইন অ্যারে মাইক্রোফোন। দুইটি ২ ওয়াটের স্পিকার থাকায় স্পষ্ট ও জোড়ালো শব্দ পাওয়া যাবে। সাউন্ড ব্লাস্টার সিনেমা ৬ থাকায় আলাদা স্পিকার ব্যবহারে শব্দের মান অপরিবর্তিত থাকবে।

উইন্ডোজ-১০ অপারেটিং সিস্টেমের ল্যাপটপটির দীর্ঘক্ষণ পাওয়ার ব্যাকআপের নিশ্চয়তায় ব্যবহৃত হয়েছে শক্তিশালী ৪ সেলের পলিমার ব্যাটারি প্যাক। যা ৮ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে ব্যাটারি ব্যাক-আপ দিতে সক্ষম। ভিডিও কল ও আকর্ষণীয় সেলফির জন্য রয়েছে ১ মেগাপিক্সেলের এইচডি ক্যামেরা। কানেকটিভিটি ফিচারের মধ্যে আছে ২টি ইউএসবি ৩.২ টাইপ এ পোর্ট, ১টি ইউএসবি ৩.২ টাইপ সি পোর্ট, ১টি ইউএসবি ২.০ পোর্ট, সিক্স ইন ওয়ান কার্ড রিডার, ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই, ব্লুটুথ ৫.০, ২টি এম.২ কার্ড স্লট, এইচডিএমআই, মিনি ডিসপ্লে পোর্ট ইত্যাদি।

বহুমুখী ফিচার থাকা সত্ত্বেও আকর্ষণীয় ডিজাইনের ল্যাপটপটি বেশ হালকা। ব্যাটারিসহ ওজন মাত্র ১.৮৫ কেজি। ফলে যে কোনো স্থানে সহজেই বহন করা যাবে। এর দৈর্ঘ্য ৩৫৯.৫ মিমি, ২৩৮ মিমি চওড়া এবং পুরুত্ব ২১.৯ মিমি। কেরোন্ডা সিরিজের এই ল্যাপটপে গ্রাহকরা ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার থেকে ২ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন। ল্যাপটপটির দাম ধরা হয়েছে ৭৯ হাজার ৯৯০ টাকা।