ঢাকা     ২২ এপ্রিল ২০২৪ ||  ৮ বৈশাখ ১৪৩১

Biz Tech 24 :: বিজ টেক ২৪

ডলার সংকট পুষিয়ে দিচ্ছে রেমিট্যান্স

বিজটেক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২১:৩৯, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩

ডলার সংকট পুষিয়ে দিচ্ছে রেমিট্যান্স

দেশের ডলার সংকট কিছুটা পুষিয়ে দিচ্ছে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স। চলতি জানুয়ারি মাসের ২৪ দিনে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১৫৫ কোটি ৫০ লাখ ডলার। এ ধারা অব্যাহত থাকলে ডিসেম্বর মাসকে ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিস্টরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যমতে, ২০২২ সালের ডিসেম্বরে বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রবাসীরা ১৭০ কোটি ডলার দেশে পাঠিয়েছিলেন, যা ছিল চার মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। সেপ্টেম্বরে এসেছিল ১৫৪ কোটি ডলার। আর অক্টোবর ও নভেম্বরে এসেছিল যথাক্রমে ১৫২ কোটি ৫৫ লাখ ও ১৫৯ কোটি ৫২ লাখ ডলার।

হিসাব করে দেখা যায়, এই চার মাসে প্রতিদিন গড়ে ৬ কোটি ডলারের কম রেমিট্যান্স এসেছে। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম দুই মাস জুলাই ও আগস্টে অবশ্য ২০০ কোটি (২ বিলিয়ন) ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছিল।

সব মিলিয়ে চলতি অর্থবছরের ছয় মাস ২০ দিনে (২০২২ সালের ১ জুলাই থেকে চলতি জানুয়ারি মাসের ২০ তারিখ পর্যন্ত) ১ হাজার ১৮০ কোটি ৮৫ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে।

জানা গেছে, প্রবাসীদের পাঠানো প্রতি ডলারের জন্য ১০৭ টাকা দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। আর রপ্তানি আয় নগদায়ন হচ্ছে ১০২ টাকা দামে। বাংলাদেশ ব্যাংকও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বা মজুত থেকে ডলার বিক্রি করছে ১০২ টাকায়। ফলে আমদানিতে ডলারের দাম পড়ছে ১০৫-১০৬ টাকা।

গত বছর রেকর্ড প্রায় সাড়ে ১১ লাখ লোক কাজের জন্য বিভিন্ন দেশে গেছেন, যা আগের বছরের চেয়ে ৮৬ দশমিক ৩২ শতাংশ বেশি। ২০২১ সালে জনশক্তি রপ্তানির পরিমাণ ছিল ৬ লাখ ১৭ হাজার ২০৯ জন। অর্থাৎ আগের বছরের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ মানুষ বিদেশ গেলেও টাকা এসেছে কম।

জনশক্তি রপ্তানিকারক, ব্যাংকার ও অর্থনীতিবিদরা বলছেন, ব্যাংকের চেয়ে খোলাবাজারে ডলারের দাম বেশি হওয়ায় প্রবাসীরা অবৈধ হুন্ডির মাধ্যমে দেশে অর্থ পাঠানোয় ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স কমেছে।